কক্সবাজার রাত ৪:০৫ ২৭ অক্টোবর, ২০২১ | ১১ কার্তিক, ১৪২৮
  শিরোনাম
মুহিবুল্লাহ হত্যার বিষয়টি মাঠ পর্যায়ের পর্যবেক্ষণ আছে: পররাষ্ট্র সচিব রোহিঙ্গাদের আমরা দাওয়াত করে আনিনি-পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিউজ পোর্টাল চালু করতে আগেই নিবন্ধন নিতে হবে : তথ্যমন্ত্রী সোনাদিয়ায় নৌক ডুবিঃ ৯৯৯ তে কলে ১৪ পর্যটক উদ্ধার, নিখোঁজ ১ হোয়াইক্যংয়ে স্থগিত দুই ভোটকেন্দ্রের পুন:নির্বাচনে শংকা, ৯ প্রস্তাবনা রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় বিদেশি সংস্থার সম্পৃক্ততা নিয়ে তদন্ত হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কক্সবাজারের ৩ উপজেলার ২১ ইউপিতে ভোট ১১ নভেম্বর মুখোশধারী সন্ত্রাসীদের গুলিতে রোহিঙ্গা নেতা মাস্টার মুহিবুল্লাহ নিহত ইউপি নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপের ভোট ১১ নভেম্বর ২০২১ সালেও জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হচ্ছে না : শিক্ষামন্ত্রী

কাউন্সিলর পুত্র সেজান হত্যার প্রধান আসামী তাহের ঢাকায় গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজার পৌরসভার ১১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুর মোহাম্মদ মাঝুর ছেলে শাহজাহান সেজান হত্যার প্রধান আসামি আবু তাহেরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি।
মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) ভোরে সাভারের তেঁতুলঝোড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে ঢাকায় সিআইডির প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।
সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর বলেন, আবু তাহেরের বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে মোট ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে তিনটিই হত্যা মামলা।
“তিন মাস আগে খুন আর ডাকাতির এক মামলায় জামিনে মুক্তি পেয়ে বেরিয়ে আসেন তাহের। এরপর ১৬ অগাস্ট মাদক ব্যবসা ও সেবনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জের ধরে কক্সবাজার বৌদ্ধ বিহারের মাঠে কক্সবাজার পৌরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুর মোহাম্মদ মাঝুর দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে শাহজাহান সেজানকে ছুরি মেরে হত্যা করেন তিনি।”
ওই ঘটনায় নিহতের পরিবার ১৭ অগাস্ট কক্সবাজার সদর থানায় মামলা করে। সেখানে আবু তাহেরকে প্রধান আসামি করা হয়।
“প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাহের হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। এই হত্যাকান্ডে জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে,” বলেন বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর।
তিনি বলেন, ২০১৫ সালের ২৩ জুলাই আবু তাহের ডাকাতি করে পালানোর সময় ট্যুরিস্ট পুলিশের কনস্টেবল পারভেজ হোসেন বাধা দেন। তখন তাকেও ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন তাহের। ওই মামলাতেই জামিন পেয়ে তিন মাস আগে তাহের বেরিয়ে এসেছিলেন।




এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Developed By e2soft Technology

Share via
Copy link
Powered by Social Snap