কক্সবাজার রাত ১১:৪৩ ২৫ মে, ২০২২ | ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯
  শিরোনাম
মহেশখালীতে প্রস্তাবিত আরো ৬ কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বাতিলের সিদ্ধান্ত ট্রাক চাপায় রামুতে বাবা-ছেলে নিহত পুলিশের অভিযানে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার, অপহৃত যুবক উদ্ধার ঝিলংজায় ৯নং ওয়ার্ডে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় শরীফ উদ্দীন মেম্বার নির্বাচিত  সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া শুরু মুহিবুল্লাহ হত্যার বিষয়টি মাঠ পর্যায়ের পর্যবেক্ষণ আছে: পররাষ্ট্র সচিব রোহিঙ্গাদের আমরা দাওয়াত করে আনিনি-পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিউজ পোর্টাল চালু করতে আগেই নিবন্ধন নিতে হবে : তথ্যমন্ত্রী সোনাদিয়ায় নৌক ডুবিঃ ৯৯৯ তে কলে ১৪ পর্যটক উদ্ধার, নিখোঁজ ১ হোয়াইক্যংয়ে স্থগিত দুই ভোটকেন্দ্রের পুন:নির্বাচনে শংকা, ৯ প্রস্তাবনা

করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি মাস্কের মানের ওপর নির্ভর করে-গবেষণা

সিটিএন ডেস্কঃ
স্বাস্থ্যকর্মীরা যেসব মাস্ক ব্যবহার করেন, সেগুলোর মানের ওপর করোনা সংক্রমণের ঝুঁকির বড় তারতম্য ঘটে। কেমব্রিজ বিশ্বিবদ্যালয় হাসপাতালের এনএইচএস ফাউন্ডেশন ট্রাস্টের গবেষণার বরাত দিয়ে বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে।

গবেষণায় বলা হয়েছে, এফএফপি৩ নামে পরিচিত উন্নতমানের মাস্ক পরলে, তা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত সুরক্ষা দিতে পারে। অপর দিকে হাসপাতালের কর্মীদের ব্যবহৃত সার্জিক্যাল মাস্কে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যকর্মীদের উন্নতমানের ব্যক্তিগত সুরক্ষাসামগ্রী দেওয়ার দাবি চলে আসছে বেশ আগে থেকে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, এনএইচএস ফাউন্ডেশন ট্রাস্টে নিয়মিত কোভিড পরীক্ষার সময় এ গবেষণার তথ্য সংগ্রহ করা হয়। গবেষণার ফলাফল পিআর-রিভিউয়ের আগে খসড়া গবেষণাপত্রে প্রকাশিত হয়েছে।

গত বছরের অধিকাংশ সময় যুক্তরাজ্যের হাসপাতালগুলো করোনা মোকাবিলার জাতীয় নির্দেশনার আলোকে পরিচালিত হয়। সেখানে কিছু বিশেষ পরিস্থিতি ছাড়া স্বাস্থ্যকর্মীদের সার্জিক্যাল মাস্ক পরতে বলা হয়।

বিজ্ঞাপন

এসব মাস্ক হাঁচি-কাশির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ড্রপলেট আটকাতে পারলেও বাতাসে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাস কণা আটকাতে পারে না। গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব স্বাস্থ্যকর্মী ‘রেড’ ওয়ার্ডে কোভিড রোগীদের সেবায় নিয়োজিত থাকেন, তাদের ঝুঁকির মাত্রা ‘গ্রিন’ বা নন-কোভিড ওয়ার্ডে দায়িত্বরতদের তুলনায় ৪৭ গুণ বেশি।

গবেষণায় নেতৃত্ব দেওয়া ডা. মার্ক ফেরিস বলেন, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের সব বিধি মেনে চলার পরও স্বাস্থ্যকর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছিলেন। সে কারণে গত ডিসেম্বরে মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে কেমব্রিজের ব্যবস্থাপকেরা ‘রেড’ ওয়ার্ডের স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষাসামগ্রী উন্নত করার সিদ্ধান্ত নেন। সেখানে একটিমাত্র কাজ বাকি ছিল। তা হলো এফএফপি৩ মাস্ক ব্যবহার এবং তাঁরা সেটা করলেন।

এফএফপি৩ মাস্ক খুব আঁটসাঁট হয় এবং বায়ুবাহিত ভাইরাস কণা যাতে আটকে যায়, তা মাথায় রেখেই এগুলো তৈরি করা হয়।

মাস্ক বদলের কয়েক সপ্তাহেই স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে সংক্রমণের হার লক্ষণীয়ভাবে কমে আসে। গবেষণার পরিসমাপ্তি টানা হয় এই বলে যে ওয়ার্ডভিত্তিক সংক্রমণের ঘটনা খুবই কমেছে। এফএফপি৩ মাস্ক কোভিড রোগীদের থেকে সংক্রমিত হওয়ার ক্ষেত্রে ৩১-১০০ শতাংশ পর্যন্ত সুরক্ষা দেয়। কেউ আক্রান্ত হলে তাঁর হাসপাতালের চেয়ে বরং লোকালয় থেকে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কাই বেশি।

গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, তরল আটকাতে সক্ষম সার্জিক্যাল মাস্ক স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার জন্য পর্যাপ্ত নয়।




Developed By e2soft Technology

Share via
Copy link
Powered by Social Snap