কক্সবাজার রাত ২:৫৫ ২৭ অক্টোবর, ২০২১ | ১১ কার্তিক, ১৪২৮
  শিরোনাম
মুহিবুল্লাহ হত্যার বিষয়টি মাঠ পর্যায়ের পর্যবেক্ষণ আছে: পররাষ্ট্র সচিব রোহিঙ্গাদের আমরা দাওয়াত করে আনিনি-পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিউজ পোর্টাল চালু করতে আগেই নিবন্ধন নিতে হবে : তথ্যমন্ত্রী সোনাদিয়ায় নৌক ডুবিঃ ৯৯৯ তে কলে ১৪ পর্যটক উদ্ধার, নিখোঁজ ১ হোয়াইক্যংয়ে স্থগিত দুই ভোটকেন্দ্রের পুন:নির্বাচনে শংকা, ৯ প্রস্তাবনা রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় বিদেশি সংস্থার সম্পৃক্ততা নিয়ে তদন্ত হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কক্সবাজারের ৩ উপজেলার ২১ ইউপিতে ভোট ১১ নভেম্বর মুখোশধারী সন্ত্রাসীদের গুলিতে রোহিঙ্গা নেতা মাস্টার মুহিবুল্লাহ নিহত ইউপি নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপের ভোট ১১ নভেম্বর ২০২১ সালেও জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হচ্ছে না : শিক্ষামন্ত্রী

ফুলছড়ি রেঞ্জের সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে অবৈধ বসতি উচ্ছেদ

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের নিয়ন্ত্রণাধীন ফুলছড়ি রেঞ্জের অধিনস্থ ফুলছড়ি বনবিটের আওতাধীন সংরক্ষিত এলাকায় অভিযান চালানো হয়েছে। এসময় বনবিভাগের জায়গায় অবৈধ দখল করে অন্তত ২০শতক বনভূমির জায়গা অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে দখলমুক্ত করা হয়।

বুধবার (৩০জুন) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার জংগল খুটাখালীস্থ হরিখোলা নামক এলাকায় এ উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়।

বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জের ফুলছড়ি বনবিটের জঙ্গল খুটাখালীস্থ হরিখোলা নামক স্থানে জায়গায় দখল করে অবৈধ ভাবে স্থাপনা নির্মাণ করে দখলের চেষ্টা চালায় কতিপয় ভূমিদস্যু চক্র। বনবিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা তৈরির সংবাদ পেয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা মো: মাজহারুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল বনকর্মী নিয়ে বুধবার সকালে অভিযান চালায়। অভিযানে ওই এলাকায় অবৈধ গড়ে তোলা ইটের তৈরি স্থাপনা উচ্ছেদ করে গুড়িয়ে দেয়া হয়। এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রায় ২০ শতক বনভূমির জায়গা অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে উদ্ধার করে দখলমুক্ত করা হয়।

বনবিভাগের উচ্ছেদ অভিযানের সময় ফুলছড়ি বনবিট কর্মকর্তা ফারুক হোসেন বাবুল, ডুলাহাজারা বনবিট কর্মকর্তা ইলিয়াছ হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট বনবিভাগের বনকর্মী, ভিলেজার, হেডম্যানসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানের বিষয়ে ফাঁসিয়াখালী ও ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম বলেন, ফুলছড়ি রেঞ্জের অধিনস্থ ফুলছড়ি বনবিটের জংগল খুটাখালী মৌজার আর. এস ৬৯ ও বি.এস ৭০ দাগের হরিখোলা নামক জায়গায় একদল ভূমিদস্যু চক্র অবৈধ দখলদার হিসেবে ইটের ঘর নির্মাণ করে জায়গা দখলের চেষ্টা চালায়। অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের খবর পেয়ে বনবিট কর্মকর্তা ও বনকর্মীদের সাথে নিয়ে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে গড়ে তোলা ইটের বসতঘর গুড়িয়ে দিয়ে দখল উচ্ছেদ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, অবৈধ দখলদারকে বনবিভাগের জায়গা থেকে উচ্ছেদ করে প্রায় ২০শতক পরিমাণ জায়গা বনবিভাগের নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। এনিয়ে বনবিভাগের সংশ্লিষ্ট আইনে দখলদারদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।




এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

Developed By e2soft Technology

Share via
Copy link
Powered by Social Snap